জেনে রাখুন, মেয়েদের কাম চাহিদা কখন বেশি বেড়ে যায়?

বিশেষজ্ঞরা জানান, মেয়েরা রাতের সময়টিতে যৌ’ন উত্তে’জনা বোধ করেন। তবে পুরুষরা করেন ভোরের  দিকে। রাতের সময়টি যৌ’নতার জন্যে আদর্শ সময় মনে করা হলেও পুরুষদের কেন এমন হয়? এর উত্তর জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

একদিনের বিভিন্ন সময়ে নারী-পুরুষের দেহে যৌ’ন অনুভূতি সৃষ্টিকারী হর’মোন ক্ষর’ণের মাত্রা নিয়েও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

১. ভোর ৫টা : এ সময় পুরুষরা ঘুম থেকে না উঠলেও সেক্স হরমোন টে’স্টোসটে’রনের ক্ষরণ অন্যান্য সময়ের তুলনায় ২৫-৫০ ভাগ বেড়ে যায়। এই হর’মোনের ক্ষরণ ঘটে রাত থেকে এবং তা সকাল পর্যন্ত চলতে থাকে ।

 

২. ভোর ৬টা : গভীর একটা ঘুমের পর যৌ’ন উত্তে’জনা দারুণভাবে অনুভূত হয়। জা’র্নাল অব আমে’রিকান মে’ডিক্যাল অ্যাসো’সিয়েশন বিষয়টি পরিষ্কার করেন যে, রাতে টানা ৫ ঘণ্টা ঘুমের কারণে সেক্স হর’মোনের ক্ষরণ ১৫ ভাগ বেড়ে যায়।

 

৩. সকাল ৭টা : এ সময়ে প্রায় সবাই ঘুম থেকে উঠে যান। পুরু’ষদের ঘুম থেকে ওঠার পর সে’ক্স হর’মোন সবচেয়ে বেশি থাকে। আবার এ সময়টিতে মেয়ে’দের থাকে সবচে’য়ে কম। তবে রাত যত আসতে থাকে নারীদের হরমোন ক্ষর’ণের মাত্রা’ও তত বাড়তে থাকে বলে জানান ওয়েস্ট বার্মিংহাম হসপিটা’লের গাইন’কোলজিস্ট গ্যাব্রি’য়েলে ডাউনি।

 

৪. সকাল ৮টা : পুরোপুরি সজাগ হওয়ার পর স্ট্রেস হরমোন কর্টি’সলের খারাপ বাড়তে থাকে এবং সে,ক্স হর,মোনের প্রভাব করতে থাকে।

 

৫. দুপুর ১২টা : এ সময় সুন্দরী রমনী দেখলে মস্তিষ্কে ভালো বোধ হয়। তবে তখন এন্ডো,ফিনস হর,মোনের নির্গ,ত হয়। তবে এ সময় সে,ক্স হর,মোনের মাত্রা বৃদ্ধিতে বেশ সময় ব্যয় হয়।

 

৬. দুপুর ১টা : এ সময় না,রীরা কোনো সুদর্শন কলিগের সঙ্গে লাঞ্চে বসলেও তাদের উত্ত,জেনা খুব বেশি একটা থাকে না। আবার পুরু,ষের সঙ্গিনী সুন্দরী হলেও উ,ত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে থাকে। তবে নারীরা তার প্রেমিক বা সঙ্গীর সঙ্গ পেলেই সবচেয়ে বেশি উ,ত্তেজিত হয়ে ওঠেন।

 

৭. সন্ধ্যা ৬টা : এ সময় পুরুষদের যৌ,ন অনুভূতি কমতে থাকে। তবে নারী,দের কিছুটা বাড়তে শুরু করে।

 

তবে ইউনি,ভার্সিটি অব ক্যালি,ফোর্নিয়ার এক গবেষণাগার থেকে জানা যায় , দৈহিক পরিশ্র,মের পর নারী-পুরুষ উভয়ের যৌন অনু,ভূতি বাড়তে পারে।

 

৮. সন্ধ্যা ৭টা : দিনের কাজ শেষে বিশ্রা,মের সময়। জাপা,নের এক গবেষণায় বলা হয়, এ সময় হালকা মিষ্টি সঙ্গীতও যৌ,ন উত্তে,জনা বাড়িয়ে দিতে পারে।

 

৯. রাত ৮টা : ধরুন, প্রিয় দলের খেলা হয়েছে। এ বিষয়টিও সে,ক্স হরমোনে প্রভাব ফেলে। ইউ,তাহ বিশ্ববি,দ্যালয়ের এক গবেষণাগার থেকে জানা যায় , প্রিয় দল জিতে গেলে পুরু,ষদের যৌ,ন হর,মোন ক্ষর,ণের মাত্রা ২০ শতাংশ বেড়ে যেতে পারে।

 

১০. রাত ১০টা : এখন পু,রুষের টেস্টোস,টেরন হরমো,নের মাত্রা সবচেয়ে কম। কিন্তু তারপরও বিকালে না,রীদের চেয়ে বেশি মাত্রা দেখা যায় পুরু,ষদের মধ্যে। তবে এখন নারীদের দেহে হরমো,নের মাত্রা বাড়তে শুরু করেছে। কাজেই ভালো,বাসাপূর্ণ সময় কাটাতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে তাদের দেহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Related Posts