June 18, 2021 || 8:52 am

মায়ের কাছে কোরআন পড়ে ১০ মাসেই হাফেজ হলো শিশু মুয়াজ।

শ্রেষ্ঠ কিতাব কোরআন প্রতিযো’গিতার অনুষ্ঠানে গিয়ে তিলা’ওয়াত শুনে মুগ্ধতা। সেখান থেকে ফিরে বাবা-মাকে জানায় কুরআন মুখস্থ করার নিজের আগ্রহের কথা। তারপর থেকেই ১০ মাসেই মায়ের কাছে পড়ে পুরো কোরআন মুখস্ত করে হাফেজ হলেন আট বছরের শিশু আবরারুল হক মুয়াজ।

 

কিশোরগ’ঞ্জ জেলার ইটনা থানাধীন ছিলনী গ্রামের হাফেজ মাহবুবুর রহমানের ছেলে মুয়াজের এ প্রতিভা বিস্ময় জাগি’য়েছে এলাকা’জুড়ে।

 

মুয়াজের চাচা হাফেজ মাহমুদুল হাসান বলেন, মুয়াজকে নিয়ে তার বাবা একদিন কিশোর’গঞ্জের ঐতি’হাসিক শহিদী মসজিদ প্রাঙ্গ’ণে অনুষ্ঠিত হিফ’জুল কোরআন প্রতিযোগি’তায় যান।

 

সেখানে ছোট ছোট বাচ্চাদের কোরআন তিলাওয়াত তন্ময় হয়ে শোনে হাফেজ মুয়াজ। বাসায় এসে বাবা-মাকে খুব দ্রুতই সে হাফেজ হবে বলে আগ্রহ প্রকাশ করে।

 

মাহ’মুদুল হাসান জানান, হিফজ শুরু করার কিছুদিন পরই দেশে করোনা’ভাইরাসের প্রকো’প বেড়ে যায়। এ সময় শিক্ষা’প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সুযো’গটা আরও ভালো’ভাবে কাজে লাগানো যায়। মুয়া’জের মা হাফেজা হওয়ায় ঘরে বসেই সে পুরো কোর’আন মুখস্ত করতে পেরেছে।

 

তিনি আরও বলেন, মুয়াজের হাফেজ হওয়ার পেছনে তার মায়ের  অবদান অপরিসীম। তার মা মুয়াজকে কোলে নিয়ে নিয়মিত কোরআন পড়তেন। ওই সময় মুয়াজ তন্ময় হয়ে শুনত আর মুখস্ত করতে লাগলো।

 

মুয়াজের অল্পবয়সে হাফেজ হওয়া নিয়ে আনন্দিত ছিলনী গ্রামবাসীরাও। হাও’রের কাদামাটি’তে জন্ম নেয়া মুয়াজ গ্রামের গৌর’ব বয়ে এনেছে বলে মন্তব্য করেন গ্রা’মের বাসিন্দা’রা।

Related Posts