January 16, 2021 || 2:30 pm

২০০০০ টাকার জন্য ৭ বছরের শিশু হত্যা

আগে অপহরণ পরে হত্যা। অপহরণ

করার তিন দিন পর জঙ্গল থেকে শাহজাহান আকন্দের বড় মেয়ে সাত বছরের সানজিদার  লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

সন্ধ্যায় মেয়েকে ফেরত পেতে যোগাযোগের মোবাইল নম্বরসহ চিরকুট পাওয়া যায় সানজিদার ঘরে। মোবাইলে নাম্বারে যোগাযোগ করলে বিভিন্ন অংকের টাকা মুক্তিপণ হিসেবে চাওয়া হয় মেয়েটির স্বজনদের কাছে।

 

গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার “রামচন্দ্রপুর আকন্দবাড়ির জঙ্গল” থেকে ঐ  শিশুটিরলাশ উদ্ধার করে।

 

সানজিদার  বাবা শাজাহান আকন্দ বলেন, গত মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে বাড়ির উঠানে খেলার করার সময় মেয়েটি অপহরণ হয়।

 

অপরানের সময় তাদের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য চিরকুটে একটি মোবাইল নাম্বার লিখে রেখে চলে যায় অপহরণকারীরা।

 

পরে যোগাযোগ করতে চাইলে নাম্বারটি বন্ধ দেখা যায়।

 

অপহরণকারীরা গত বুধবারের (১২ জানুয়ারি) ফোন দিয়ে মেয়ের পরিবারকে বিকাশ নাম্বারে ২০ হাজার টাকা পাঠাতে বলে।

 

টাকা পাঠাতে না পারায় ফিরল মেয়েটির লাশ।

 

সেদিনই (বুধবার) থানায় সাধারন ডায়েরি করা হয়েছে। কিন্তু পুলিশ আমার মেয়েকে উদ্ধার করতে পারেনি।

 

গতকাল শুক্রবার সকালে আমার মেয়ের লাশ জঙ্গলে পাওয়া গেল।

 

জলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জানান, অপহরণকারীর মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং করে শনাক্ত করার চেষ্টা করছিল পুলিশ।

 

কিন্তু শুক্রবার সাানজিদার লাশ পাওয়া গেল। পুরো বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করছে।  অচিরেই অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবো।

Related Posts